আউটসোর্সিং কি আউটসোসিং কি আউটসোসিং কেন আউটসোসিং কিভাবে||Online_Incame_2022

 

আউটসোর্সিং কি
আউটসোর্সিং কি

আউটসোর্সিং কি

আসসালামু আলাইকুম, আশা করি সবাই ভালো আছেন, আমি আপনাদের জন্য আজকে আলোচনা করবো ঘরে বসে উপার্জন করে কিভাবে, আপনারা যদি আমার পাশে থাকেন তাহলে আমি আপনাদের জন্য আরোও নতুন নতুন তথ্য মূলক পোষ্ট আনার চেষ্টা করবো আপনাদের শুধু আমার একটা উপকার করতে হবে আমার পোষ্ট গুলো আপনাদের বন্ধুদের সাথে বেশি বেশি শেয়ার করবেন আশা করি, চলুন তাহলে শুরু করা যাক আমাদের পোষ্ট টি


আউটসোসিং কি


আউটসোসিং কেন


আউটসোসিং কিভাবে


১.আউটসোসিং কিঃ

আমরা জানি বৈদেশিক মুদ্রা ঘরে বসে উপাজন করাকে আউটসোসিং বলে তবে এটা সংঙা তবে আউটসোসিং করা খুব কঠিন যদি আপনি ইংরেজি ভালো না জানেন তাহলে আপনার জন্য খুব কঠিন হয়ে যাবে এক হিসাবে আপনাকে দুই ভাবে দক্ষ হতে হবে এক আপনাকে কাজ শিখতে হবে যেটা আপনি ভালোও পারেন সেটার উপর দক্ষতা অর্জন করতে হবে তার পর আপনাকে ইংরেজি উপর ভালো ভাবে দক্ষতা অর্জন করতে হবে তার পর আপনি এর উপর দক্ষতা অর্জন করতে পারবেন, তবুও সময় লাগবে কারন আপনার মতো আরোও অনেক আছে তারা আপনার মতো বায়ার অপেক্ষা আছে এখানে কাজ পাওয়া খুব টাপ তবে চিন্তা নাই আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে  ধর্য্য ধরতে হবে আর আপনাকে কাজ করে যেতে হবে যদি আপনি সার্ভিস ভালো দিতে পারেন তাহলে আপনাকে আর পিছনে ফিরে তাকানোও লাগবে না আপনি আপনার রাস্তা পেয়ে যাবেন আমি মনে করি।



২.আউটসোসিং কেনঃ

ঘরে বসে আছেন আপনি কোন কাজ নেই বেকারত্ব একটা বড় জ্বালা যে বেকার সে জানে কতটা টা কঠিন, আপনাকে কথা বলার জন্য অনেক লোক ওত প্রতে বসে আছে তারা শুধু একটু সুযোগ খুজে আবার অনলাইনে তো ভাই টাকা দেখা যায় না এজন্য কেউ বিশ্বাস করে না তারা নানা ভাবে আপনার উপর আক্রমন চালাবে আবার আপনাকে সামনের দিকে কখনোও যেতে দিবে না আপনাকে কোন ভাবে সাহায্য ও করবে না শুধু তামসা দেখবে তারা তবে সমস্য নেই কুকুর যত কাটুক না কেন তাকে কাটা কি যায় তেমন চিন্তা করে আপনাকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে আপনার মনো বল শক্তি আপনাকে পৌছে দিবে আপনার সাফল্য দিকে, শুধু আপনাকে ধয্য সাথে কাজ করতে হবে।


আউটসোসিং কিভাবেঃ

আপনি নানা ভাবে আউটসোসিং করতে পারবেন তবে আপনাকে অনেক কষ্ট করতে হবে সব যায়জাগায় কথায় আছে প্রশিক্ষন কঠিন যুদ্ধ সহজ তেমন টায় মনে করে আপনাকে কাজ করতে হবে সব সময়। অনেক জায়গায় কাজ করতে পারবেন যেমনঃ ব্লগিং করে ইনকাম, আপনি যদি লেখা লেখি করতে পছন্দ করেন তাহলে আপনি ব্লগিং করতে পারেন. ইউটিবং আপনি যদি ভিডিও বানাতে পারেন তাহলে ভিডিও তৈরি করে আউটসোসিং করতে পারেন, তবে আপনাকে মনে রাখতে হবে আপনার প্রতিযোগিতা খুব বেশি আপনাকে ধর্য্য ধরে কাজ করতে হবে এ ছাড়া অনেক মার্কেট প্লস আছে যেমন ফাইভার, ফ্রিলান্সার. ও ডিস্ক সহ নানা রকম আউটসোসিং প্লাট ফর্ম আছে সব জায়গায় কাজ না করে আপনি যেটা ভালো পারেন সেটাতে কাজ করুন

আউটসোসিং বাংলাদেশের অবদান সমূহঃ

আমাদের বাংলাদেশের বেকারত্ব দিন দিন যেভাবে বাড়েছে তাতে মনে হয় আমাদের দেশের অথনিতিক ব্যবস্থা অনেক খারাপ পরযায় চলে যাবে আমি মনে করি তবে আমাদের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা খুব খারাপ কারন কারিগরি শিক্ষা না দিয়ে তারা সাধারন শিক্ষা নিয়ে সরকার মাতামাতি করে এর ফলে আমাদের দেশে দক্ষ জনসংখ্যার খুব অভাব এর কারন এ আমাদের কে বাইরে দেশের উপর নিভর করে থাকতে হয়, তবে আমাদের দেশের উন্নয়ন মূল মন্ত্র হচ্ছে আউটসোসিং কারন ঘরে বসে আপনারা ইনকাম করতে পারেন তবে আমাদের দেশে ইংরেজিতে খুব দূবল তবে আমাদের দেশে অনেক প্রশিক্ষন সেন্টার আছে সেখানে সবাই শিখতে পারে তবে আমাদের দেশ অলি গলিতে নেটওয়াক এর সমস্যা তাছাড়া আমাদের অথনীতিক ভাবে খুব দূর্বল কারন আমাদের দেশে কারিগরি শিক্ষার অভাব এর ফলে আমাদের দেশে দক্ষ লোক সংকট আছে এর ফলে আমাদের দেশের লোক দেরকে অন্য দেশের উপর নির্ভশীল হয়ে থাকে, তবে আমাদেরশের তথ্য প্রযুক্তি দিক থেকে অনেক পিছিয়ে আছে এর ফলে অনেক এ জানে না আউটসোসিং কি তবে আমাদের সরকার যদি উদেগ গ্রহন করে সবাইকে আউটসোসিং শিখার পথ তৈরি করে দেয় তাহলে আমাদের দেশ স্ববলবী হ্ওয়া গল্প বুনতো কারন আমাদের দেশ সবাই কাজ করতে চায় কিন্তুু কাজ দেয়া মতো লোক নাই তবে আমাদের দেশর মানুষদের শুধু কাজ করার সুবিধা করে দেয়ায় লাগবে তবে এই সুযোগ টা কেউ করে না আবার করে দিতে অনেক টা চায় কেউ কাউকে সাহায্য করতে চায় না তবে শিখার জন্য অনেক টাকা দরকার পরে আমাদের এমনিতে টাকার দরকার  আবার টাকা দিয়ে শিখতে হয়, এজন্য আমাদের দেশের কোন উন্নয়ন হয় কারন পরিশ্রম করা মতো লোক নেই

আউটসোসিং করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা সম্ভাবঃ

আমাদের বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রা খুব দরকার কারন বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করলে আমাদের দেশে অথনীতিক ভাবে উন্নায়ন হবে যেমন আমাদের দেশে কাপড়, চিংড়ি মাধ্যমে থেকে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারে তেমনি আমাদের দেশের কম্পিউটার মাধ্যমে আউটসোসিং মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারবে,তবে আমাদের সবাইকে পরিশ্রম করতে হবে ইংরেজি শিখার প্রতি কারন আমাদের দেশের ভাষা থেকে অনেক আলাদা তাই অনেক কষ্ট হয় আয়ত্ত করতে ভাষাটা তবে ভয়ের কিছু নেই সব করতে পারে মানুষ যদি চেষ্টা করে, আমাদের বাংলাদেশে এখন অনেকে এই পেশা টা বেছে নিচ্ছে কারন এই পেশা সম্পন নিজের উপর যখন ইচ্ছা তখন কাজ করা যায়, নিজের মতো বাচা যায়, তবে এখানে অনেক টাপ আছে উপরে উটতে কারন আপনার মতো অনেক আছে কাজ করছে এজন্য মাকেট পেতে আপনাকে অনেক কষ্ট করতে হবে তবে সম্ভব আপনি যদি চেষ্টা করেন তাহলে সামনের দিকে আপনি এগিয়ে যেতে পারবেন আমি মনে করি, তা ছাড়া আমাদের বাংলাদেশের মুদ্রা দাম অনেক কম আর বৈদেশিক মুদ্রা খুবই দাম বেশি তাই অল্প পরিশ্রম বেশি টাকা উপাজন করা সম্ভব, আমাদের বাংলাদেশে আগামিতে অনেক ফ্রিল্যান্সার হবে তবে অনেক এ আবার পরিশ্রম করে সঠিক ফল না পেয়ে হাল ছেড়ে দেয় তবে আপনাকে হাল ছেড়ে দিলে হবে না কারন কথায় আছে পরিশ্রম হচ্ছে সৌভাগ্যর চাবি কাঠি আপনাকে লেগে থাকতে হবে তবে সঠিক গাইঠ লাইন ফলো করলে আরোও তারাতারি ফলাফল পেতে পারেন আমি মনে করি,   আমাদের দেশে আউটসোসিং করার মতো সামর্থ থাকে না তাদের জন্য যদি সরকার নিজ উদেগ গ্রহন করে যুব সমাজ কে প্রশিক্ষণ দেয়া হয় তাহলে আমাদের বাংলাদেশে প্রচুর ফ্রিল্যান্সার হবে  এদের দাড়ায় আমাদের দেশে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন হবে প্রচুর পরিমান তবে সরকার আমাদের দিকে কখনেও খেয়াল করে না, তবে আপনি নিজ উদেগ আপনাকে করতে হবে, সঠিক গাইড লাইন ফলো করে যদি পরিশ্রম করেন তাহলে আপনি সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারবেন তবে আপনাকে খুব পরিশ্রম করতে হবে। আমি আমার সাইটে নানা ধরনের ইনকাম পোষ্ট করে থাকি আপনাদের জন্য ,আপনাদের যদি ভালো লাগে তাহলে আমার পোষ্ট গুলো আপনাদের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে পারেন  এতে করে আপনাদের বন্ধুদের আইডিয়া পেয়ে যাবে তবে আমার সাইটে নানা ধরনের পোষ্ট করি আপনাদের যদি সাপোট করেন আমাকে আমি আরোও নানা ধরনের পোষ্ট করবো, 
সবাই ভালো থাকবেন আমার পাশে থাকবেন ধন্যবাদ।

Post a Comment

2 Comments

  1. ভাই সবি ঠিক আছে কিন্তু ভালো করে কাজ শেখার মতো কি কেউ আছে??

    ReplyDelete
    Replies
    1. হুম আছে ভাই আমার কাছে শিক্ষতে পারবেন

      Delete